Wednesday, February 5, 2014

পরমের প্রাথমিক কিছু ভাবনা৬, Various Other Ideas of Param6

পরমের বারোমাস্যা
মোটামুটি যে ১২টি পরম সংখ্যার পরিকল্পনা রা গিয়েছে-

প্রথম সংখ্যাটি প্রকাশিত হয়েছে। লোহা ইস্পাত শিল্প নিয়ে। ছিল ১) রস-রত্ন-সমুচ্চয়ে ধাতুর শ্রেণীবিভাগ।২) উনবিংশ শতকে ভারতের নানান অঞ্চলের লোহা-ইস্পাত শিল্পের বর্ননা। ৩) ঊজ় ইস্পাত।  ৪) মাড়িয়াদের লোহা তৈরির প্রযুক্তি। ৫) খাসি পাহাড়ের লোহা তৈরি প্রযুক্তি। ৬) বাংলার লোহা তৈরির ইতিহাস এবং মুণ্ডাদের লোহা তৈরির প্রযুক্তি। ৭) সোনাধর বিশ্বকর্মাকে নিয়ে একটি লেখা। ৯) বাংলার কামারশালের ছবি প্রতিবেদন।

দ্বিতীয় সংখ্যাটি কাল প্রকাশিত হবে সুবার পাটনার সোরা শিল্প নিয়ে। সোরা শিল্পে সে সময় বাংলার সুবা ছিল বিশ্বের সেরাউৎপাদক। কয়েকটি আগের পোস্টে বিশদ সূচী দিয়েছি।

তৃতীয়টি হবে বাংলার নুন উৎপাদন, মেদিনীপুরের নুন শিল্পকোম্পানির লবণ মহল লুঠধনী বাঙ্গালীদের নুনেরব্যবসা, রয় মক্সহ্যামের একটি লেখা- নুন শরীরে না গেলে কি কি প্রতিক্রিয়া তেপারে, আর সব শেষে বংলার নুনস্বাধীনতা সংগ্রাম নিয়ে একটি লেখা।

চতুর্থটি হবে চাষ নিয়ে কৃষি পরাশর নতুন আকারে, নতুন ভুমিকায় প্রকাশ পাবে। ১০০ বছরের পুরোনো কৃষি পরাশরের অনুবাদ থাকবে। ১০০ বছরের বেশি পুরনো কয়েকটি কৃষি পত্রিকার নানান বিষয়ে লেখার সঙ্গে কৃষি বিষয়ে পুরোনো কিছু রম্য রচনা। সঙ্গে আরও কিছু লেখা 

পঞ্চম হবে ভারতের পাঠশালা, ওয়ার্ড ও অ্যাডামের সমীক্ষা, মাদ্রাজের পাঠশালে প্রযুক্তি পাঠবিশ্ববিদ্যালয়,বিদ্যাচর্চাদেশিয় বিদ্যাচর্চার স্থান নিল ইয়োরোপীয় জ্ঞান চর্চা তার ক্রমবিবর্তন ইত্যাদি

ষষ্ঠ সংখ্যাটি হবে বাংলার বুনন শিল্পপ্রযুক্তিইতিহাসতাঁতিদের স্বাধীনতা সংগ্রামভারত যেভাবে ইয়োরোপকেসুতোর পরিধেয় পরিয়ে সভ্য করল তার ইতিহাস এবং বাংলার মসলিন তৈরির প্রযুক্তি, ১৫০ বছরের প্রাচীন লেখা থেকে।

সপ্তমটি হবে বাংলার শাঁখ শিল্প। শাঁখারিশাঁখশাঁখা নিয়ে মৌখিক সাহিত্য ইত্যাদি

অষ্টমটি হবে শোলা। শোলার বিভিন্ন শিল্প আর শিল্পী

নবমটি হবে হবে বাংলার মহিলা এবং তাঁদের শিক্ষার ঐতিহ্য নিয়ে

দশমটি বাংলার ব্রিটিশ বিরোধী গ্রামীণ স্বাধীনতা সংগ্রাম, এতদিন যেগুলোকে বিদ্রোহ নামে দেগে দেওয়া হয়েছিল।

একাদশে বাংলার নৌকো, জলযান ইত্যাদি। জয়াদি লিখবেন বাঙ্গালীর জীবনে নৌকো। ১৮০০ সালে আঁকা নৌকোর প্রচুর ছবি থাকবে।

দ্বাদশ খন্ডটি  বাংলার বাড়ি, ঘর, বাস ইত্যাদি নিয়ে।

এছাড়াও প্রত্যেক সংখ্যায় অন্য কিছু নিয়মিত বিষয় আর লেখা থাকবে। এক বর্নহিন্দু চা বাগানে কুলি হয়ে গিয়েছিল। তার স্মৃতিকথা ধারাবাহিক যাবে। ইচ্ছে আছে উইলিয়াম অ্যাডামের সমীক্ষাটি নিয়মিত প্রকাশ করা। আরও একটি উপন্যাস পাওয়া গিয়েছে কলকাতা থেকে উদ্বাস্তু হয়ে জঙ্গল মহলে বাস করা ও চাষ করার কথা। প্রত্যেক সংখ্যায় রান্না বিষয়ে অবশ্যই একটি করে লেখা যাবে। একটি খন নাটক যাবে। বাংলার প্রত্যেকটি সমাজে রান্না শুধু শরীর বাঁচানো ছাড়াও বৃহত্তর সংস্কৃতির অংশ। জেলা ধরে ধরে, রান্না ধরে ধরে, মশলা, শাক সবজি ধরে ধরে, উনুন, জ্বালানি ধরে ধরে, ব্রত, আচার আচরণ ধর্ম ধরে ধরে রান্নার লেখা তৈরি হবে।
Post a Comment