Saturday, October 19, 2013

বিল গেটস ফাউন্ডেসন১, Bill & Melinda Gates Foundation1

মাইক্রোসফটের অবসরপ্রাপ্ত মালিক বিল গেটসের দাতা সমিতি, বিল এবং মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেসন বিকেলে চা খাওয়ার ঢঙে ২৩ মিলিয়ন ডলার(কত টাকা? ) খরচ করে মনসান্তোর ৫ লক্ষ শেয়ারের অংশীদার হল। আমেরিকার ১০টি বড় দাতা সংগঠনের মধ্যে বিল গেটসের এই দৈত্যসম সংগঠনটি প্রথম সারির। বিশাল পরিমাণ কর ছাড় পায়। খবরটি ওয়াল স্ট্রিটের এক জার্নালে বেরতেই কৃষি আন্দোলনকারীদের টনক নড়ে ওঠে। আমেরিকার ৯০ শতাংশ কৃষি জমি জিন কর্পোরেটদের দখলে। গোষ্ঠী বা ব্যক্তি কৃষকেরা জৈব কৃষির দাবিতে সোচ্চার। বিগত ১০০ বছর ধরে মনসান্তোর মানুষমারা কৃষি সারা বিশ্বে নিন্দাবাদ কুড়িয়েছে। প্রত্যেকদিন বিশ্বের কোনও না কোনও প্রান্তের এক জন না একজন কৃষক মনসান্তোর চাপে জিন বীজ চাষ করতে গিয়ে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হচ্ছেন। রাষ্ট্রগুলোর মদতপ্রাপ্ত মনসান্তোর জিন পরিবর্তিত এবং জিন কারিকুরি(এঞ্জিনিয়ারিং) করা বীজ সারা বিশ্বের কৃষকদের ঘুম কেড়েছে। আমেরিকায় মনসান্তো সুরক্ষা বিল পাস হয়েছে। আগামী ছ মাস মনসান্তোকে কোনও ইস্যুতে আদালতে নিয়ে যেতে না পারে তার জন্য হাউস অব রেপ্রেসেনটেটিভ ঘোমটা পরিয়ে এই আইন পাস করেছে।
কিন্তু বিলের উদ্যেশ কি?

গবেষকেরা বলছেন বিলের বাবা উইলিয়াম গেটস, টমাস রবার্ট ম্যালথাসের ইউজেনেটিক্স বা নিয়ন্ত্রিত, পরিকল্পিত প্রজনন তত্বে বিশ্বাস করতেন। তিনি আমেরিকান ইওজেনিক্স সোসাইটির নতুন নামকরন করেন প্ল্যান্ড পেরেন্টহুড। ২০০৩ সালে পিবিএসে এক সাক্ষাতকারে বিল এই তথ্য স্বীকার করে বলেন, তার বাবা পরিকল্পিত পিতৃত্বে বিশ্বাসী ছিলেন। সন্তান হবে উচ্চমেধা সম্পন্ন এমন কয়েকটি পরিকল্পনা তার সংগঠন গ্রহণ করেছিল(http://www.pbs.org/now/transcript/transcript_gates.html)। তার পরিবার বহুবছর ধরেই এই ধরনের নানান পরীক্ষা নিরীক্ষা করে এসেছে। তার বাবা বিশ্বাস করতেন মানুষ জন্মেছে শুধুই অপরিকল্পিত বাচ্চা দেওয়ার জন্য। এই সাধারন মানুষকে হয় ধংস করতে হবে, নয়ত নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। মাঝামাঝি কোনও পথ নেই। আজকে বাবার তাত্বিকতায় বিশ্বাস রাখেন না এমন কথাও তিনি সেই সাক্ষাতকারে বলেছেন, কিন্তু তিনি যখন দান করেন তখন হয়ত ছোট্ট শিশুটি হয়ে পিতার তত্বে আশ্রয় নিতে চান। ফলে তিনি নানান টিকা দান আর  জিএমও বীজ ছড়িয়ে মানুষের জীবন নিয়ন্ত্রণ করতে চান।
Post a Comment