Saturday, February 16, 2013

থিয়েটার, হরপ্রসাদ শাস্ত্রী


প্রাটীন বাংলার গৌরব থেকে আরও একটি লেখা

থিয়েটারের সেকালের নাম প্রেক্ষাগৃহ বা পোকখা ঘরঅ ইওরোপের অনেক পণ্ডিতেরা বলিয়া থাকেন যে ভারতবর্ষে থিয়েটার ছিল না, থিয়েটারের ব্যাপার গ্রীস হইতে এখানে আসিয়াছে, থিয়েটার রাজাদের নাচঘরে থাকিত একথা একেবারে ঠিক নয় আমাদের নিজ গৌরবের কথা আলোচনা করিতেছি পরনিন্দায় কোন প্রয়োজন নাই
আমাদের শাস্ত্রে বলে, এক সময় দেবাসুরের ঘোর দ্বব্দ্ব হইয়াছিল, সেই যুদ্ধে জেতিয়া ইন্দ্র এক ধ্বজা খাড়া করয়া দেন ধ্বজার নীচে দেবতার দল আমোদ আহ্লাদ করিতে থাকেন আমোদ করিতে করিতে তাঁহারা দেবাসুরের যুদ্ধ অভিনয় করিয়া বসিলেন দেবতারা দেখিলেন যে বা! ঐ ইহাতে ত বেশ আমোদ হয় যখনই শত্রুধ্বজ তুলা যাইবে, তখনই এই রকম অভিনয় করতে হইবে অসুরেরা বলিল, বা! আমাদের ছোট করবার জন্য তোমরা একটা নতুন কীর্তি করিবে আমরা কিছুতেই হইতে দিব না এই বলিয়া তাহারা অভিনয় ভাঙিয়া দিবার জোগাড় করিয়া তুলিল ইন্দ্র এই কথা শুনিয়া  এক বাঁশ লইয়া তাহাদিগকে তাড়া করিলেন অসুর মারিতে মারিতে বাঁশের ডগাটি ছেঁচিয়া গেল, তাহার নাম হইল, জর্জর জর্জর সেই অবধি নাটকের নিশান হইল প্রেক্ষাগৃহ তৈয়ার করিতে গেলে আগে জর্জর পুঁতিতে হইত, নাটক আরম্ভ করিতে গেলে আগে জর্জরের পুজা করতে হইত
Post a Comment