Saturday, July 28, 2012

কোচবিহার শহরের দইওয়ালা

আমার শিশুকালে মেদিনীপুরে গ্রামে দিদার বাড়ি থাকাকালীন দই ওয়ালাদের দেখতাম, বাড়ি বাড়ি দই নিয়ে আনতেন. সঙ্গে চ্যাপটামত মিষ্টির হাঁড়ি, অনেকটা যেমন কিছুদিন আগেও কলকাতায় শোনপাঁপড়ি বিক্রেতারা বাঁড়িতে ফেরি করতে আসতেন. অনামা এই ফেরিওয়ালামশাই সেরিবা-সেরিবানের উত্তরপুরুষ, যিনি আজও বাড়ি বাড়ি দই ফেরি করে বেড়ান. মিষ্টির হাঁড়ির বদলে তিনি নিয়ে এসেছেন প্লাসটিকের কৌটো.
আমি ব্যক্তিগতভাবে খুবই খুসনসিব যে ভারত আর বাঙলার এই পরিবর্তনের সময় এই পারম্পরিক ব্যবসায়ী মানুষজনের দেখা পেয়ে চলেছি.
Post a Comment